শ্রীশ্রী কৈবল্যশক্তি

শ্রীশ্রী কৈবল্যশক্তি

শ্রীশ্রী কৈবল্যশক্তি

কৈবল্যধাম আশ্রমের পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত এই বিরাট বটবৃক্ষ, শ্রীশ্রী ঠাকুর যার নামকরণ করেন “কৈবল্যশক্তি”।

কৈবল্যশক্তির মাহাত্ম্য সম্পর্কে শ্রীমুখে ঠাকুর যাহা বলিয়াছেন তাহা নিম্নে বর্ণিত হইল –

 

 . . . . . . . . . . কৈবল্যনাথ বলিতে গেলে কৈবল্য শক্তিকেও বলিতে হইবে। ইহাতে যে কোন দেবতারই অর্চ্চনা হউক না। সেই সেই দেবতার ঐ কৈবল্যনাথেরই হইবে। যে চিত্রপট আছে সেখানে মঙ্গলঘট বসাইয়া তাহারই নিকট যাহার যে বিধান বিধি আছে সেই বিধি দৃষ্টেই পূজা হইবে। ইহার মধ্যে সংশয় কি হইতে পারে। ঐ চিত্রপটেও দেবদেবীর অর্চ্চনা বিধিপূর্ব্বক করিলে হইতে পারে। বিধি বিধানে আছে ঘট পট হইতে পারে। মহাদেবীর ধ্যানদি সাঙ্গোপাঙ্গ সহিত যে পূজা বিধান আছে তাহা ঐ পটেও হয়। ঐ পটে যদি জীবের প্রাণীস্বত্ত্বার রূপ বলিয়া সংস্কার থাকে তাহা হইলে কৈবল্য অর্চ্চনা হইবে না। ঐপটকেও কৈবল্যই প্রকাশ জানিয়া উহার সমস্ত বিভূতি আর জগতে ত্রিধা বিকাশের দেবদেবী জানিবেন  . . . . . . . . . . ।